রবিবার ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ‘ডাকাত’ নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য।

প্রকাশঃ ০৪ জানুয়ারি, ২০১৬

gunfight_557512fa772dc_55c823111ae35_300x300_56567f9d0b041.png
প্রচ্ছদ > সমগ্র বাংলাদেশ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১, পুলিশসহ আহত ৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

Published: 2015-12-16 10:01:11.0 BdST Updated: 2015-12-16 23:40:43.0 BdST

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ‘ডাকাত’ নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য।

বুধবার ভোরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ধরন্তি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে সরাইল থানার ওসি মো. আলী আরশাদ জানান।

নিহতের নাম বশির মিয়া (৩০)। আহতরা হলেন সরাইল থানার এসআই আবদুল আলীম, কনস্টেবল মেহেদী হাসান ও রবিউল।

ওসি আরশাদ বলেন, “ভোর ৩টার দিকে ধরন্তি এলাকায় পুলিশের একটি টহল গাড়িকে লক্ষ্য গুলি ছোড়ে ডাকাতরা। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি করলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত বশিরের লাশ উদ্ধার করা হয়।”

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের বিরাসার এলাকাও পুলিশের সঙ্গে ‘ডাকাতদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন সদর থানার সহকারী পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ।

ভোর সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনায় খোরশেদ মিয়া নামে এক ‘ডাকাত’ ও তিন পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে জানান তিনি।

আহতরা হলেন- সদর থানার ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস, এসআই প্রেমধন মজুমদার ও কনস্টেবল কামাল।

এএসপি তাপস বলেন, “একদল ডাকাত বিরাসার এলাকায় যানবাহনে ডাকাতির চেষ্টা করছিল। এ সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে ডাকাতরা পুলিশের দিকে গুলি চালাতে থাকে। এ সময় পুলিশও পাল্টা ছুড়লে ডাকাত খোরশেদসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হন।”

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি রামদা, একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড গুলিসহ পাঁচ ডাকাতকে আটক করা হয় বলে জানান তিনি।

আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতলে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে আটকদের নাম জানাতে পারেননি এএসপি তাপ