মঙ্গলবার ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সিলেটে সওজ প্রকৌশলীকে পেটানোর ঘটনায় মামলা

প্রকাশঃ ০৭ জানুয়ারি, ২০১৬

সিলেটে সড়ক ও জনপদ (সওজ) কার্যালযে ঢুকে এক উপ-প্রকৌশলীসহ দুই অফিস সহকারীকে মারধরের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

বুধবার রাতে মহানগরর পুলিশের কোতোয়ালি মডেল থানায় আহত উপ-প্রকৌশলী আবুল বরকত খুরশিদ আলম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল আহাম্মদ জানান, সওজের প্রকৌশলীর উপর হামলার ঘটনায় রাতে একটি মামলা হয়েছে। হামলাকারীদের কাউকে এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা যায়নি। পুলিশ হামলাকারীদের গ্রেফতারে চেষ্টা করছে।

এর আগে, বিকেলে সিলেট নগরের চৌহাট্টা এলাকায় সওজ কার্যালয়ে ঢুকে ঠিকাদার আকবর আলী ও মোজাম্মেল হোসেন নান্টুর নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ ক্যাডার উপ-প্রকৌশলী আবুল বরকত খুরশিদ আলমকে মারধর করেন। এসময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন সওজের অফিস সহকারী এরশাদ ও ফরিদ আহমদ।

দরপত্রের মাধ্যমে সিলেটের জাফলং সড়কের সংস্কার কাজ নিম্নমানের ইট দিয়ে করায় কৈফিয়ত চান প্রকৌশলী খোরশেদ আলম। এতে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন দুই ঠিকাদার। নগরের পাঠানটুলার বাসিন্দা ঠিকাদার মোজাম্মেল হক নান্টু মুঠোফোনে তার অনুসারী ছাত্রলীগ ক্যাডারদের ডেকে আনেন।

১০/১২টি মোটরসাইকেলে করে আসা ক্যাডাররা সওজ কার্যালয়ে ঢুকে প্রকৌশলী ও দুই অফিস সহকারীকে মারধর করে চলে যান।

এ বিষয়ে সিলেট সড়ক ও জনপদ অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, ঠিকাদার নান্টু সব সময় নিম্নমানের উপাদান দিয়ে কাজ করে। তাই এবার তাকে কাজ দেয়া হচ্ছে না এবং নিম্নমানের কাজ করার কৈফিয়ত চাওয়ায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে একজন সৎ কর্মকর্তার উপর হামলা করিয়েছেন।