শনিবার ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

বিএনপি-জামায়াত ও জঙ্গিবাদীরাই হামলায় জড়িত

প্রকাশঃ ১৩ জানুয়ারি, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক= ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হাফেজ মাসুদুর রহমান (১৮) নামে এক মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাজারো বিক্ষুব্ধ মাদরাসা ছাত্রদের চালানো তাণ্ডবের সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত ও জঙ্গিবাদীরাই জড়িত বলে দাবি করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। বুধবার দুপুর ১২টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার এ দাবি করেন।

আল মামুন সরকার বলেন, জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসা কর্তৃপক্ষ আমাদের পরিষ্কার করে বলেছে গতকালের হামলা-লুটতরাজের সঙ্গে মাদরাসা ছাত্ররা জড়িত নয়। তাদের মধ্যে একটি অপশক্তি প্রবেশ করেছিল।

তিনি বলেন, যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করেন না এবং অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিরোধী শক্তি তারাই গতকাল সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গণে হামলা চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করেছে, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের কার্যালয়ের ভাঙচুর চালিয়েছে।

গতকাল জেলা প্রশাসনের নিরব ভূমিকায় বিব্রত হওয়ার কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, গতকালের তাণ্ডবে অন্তত ৭০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে আমাদের কাছে একটি হিসেব এসেছে। প্রশাসন ইচ্ছে করলে অন্তত একটি প্রতিষ্ঠানকে হলেও হামলা থেকে রক্ষা করতে পারতো।

এ সময় তিনি সরকারের কাছে নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে নিহত মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ারও দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহ আলমসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবন্দ এবং জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

উল্লেখ্য, মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার দিনভর ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন, জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়, জেলা সদর হাসপাতাল, সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গণ, সাংস্কৃতিক সংগঠনের কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থাপনায় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধ মাদরাসা ছাত্ররা।