বৃহস্পতিবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৪শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

ঘরে গৃহবধূর ক্ষতবিক্ষত লাশ, স্বামী-মেয়েরা নিখোঁজ

প্রকাশঃ ১৮ জানুয়ারি, ২০১৬

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে নিজের ঘরে পাওয়া গেছে এক নারীর ক্ষতবিক্ষত লাশ। তার স্বামীসহ দুই মেয়ের খবরও মিলছে না।

বেলকুচি উপজেলা শহরের মুকুন্দগাতি বাজার এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি থেকে রোববার রাতে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়ে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

রশিদ মাস্টারের (৮৪) টিনশেড ঘরের একটি কক্ষ এক সপ্তাহ আগে ভাড়া নিয়েছিল দুই শিশুকন্যাসহ ওই দম্পতি। তাদের নাম-ঠিকানাও জানাতে পারেননি বাড়িওয়ালা।

বেলকুচি থানার এসআই আমিরুল ইসলাম সোনারবাংলা ৭১.কমকে বলেন, “সারাদিন ওই ঘরের খোলা দরজায় পর্দা ঝুলতে দেখেছেন রশিদ মাস্টার ও তার স্ত্রী। কিন্তু সন্ধ্যার দিকে তারা খেয়াল করেন সারাদিনে তারা ওই ঘরের কারও সাড়া পাননি।”

রশিদ মাস্টার পুলিশকে বলেছেন, সন্দেহ হওয়ার পর ঘরে উঁকি দিয়ে ক্ষতবিক্ষত ওই নারীর লাশ দেখে তিনি থানায় খবর দেন।

এসআই বলেন, নিহতের মাথা ও কপালে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে, একটি চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে।

তখন থেকে ওই ব্যক্তি ও তার মেয়েদের পাওয়া যাচ্ছে না। স্থানীয় কেউই ওই দম্পতির নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি।

বাড়িওয়ালা রশিদ মাস্টার বলেছেন, গত ১১ জানুয়ারি ওই ঘরটি ভাড়া নেয় ওই দম্পতি। তাদের পাঁচ-ছয় বছর বয়সী দুই শিশুর নাম লাম ও মিম।

নিহত নারীর ঘরে কাগজপত্রের মধ্যে একটি চিরকুটে ‘পপি’ নামটা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন এসআই আমিরুল। তবে এটি ওই নারীর নাম কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয় পুলিশ।

তিনটি কক্ষের ওই টিনশেড বাড়ির একটিতে থাকেন রশিদ মাস্টার ও তার স্ত্রী। মাঝের কক্ষটি খালি ছিল।