শনিবার ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

অন্যায়কারী প্রভাবশালী আ.লীগের হলেও প্রশ্রয় নয়

প্রকাশঃ ২৭ জানুয়ারি, ২০১৬

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার উৎখাতের নামে গত বছর তিন মাস ধরে যে তাণ্ডব চালানো হয়েছে তা মোকাবেলা করার জন্য পুলিশ বিভাগকে আমি ধন্যবাদ জানাই। তবে গ্রামেগঞ্জে অনেক দুর্বল মানুষ রয়েছে তাদের রক্ষার দায়িত্ব পুলিশের। দুর্বল মানুষের জমিজমার ওপর অনেক সময় প্রভাবশালীদের খারাপ নজর থাকে, তাদেরকে হেনস্থা হতে হয়। এসব প্রশ্রয় দেয়া যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী
পুলিশের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার দলের কেউ হলেও তাকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। প্রয়োজনে আমাকে জানাবেন, আমাকে জানানোর দায়িত্ব কিন্তু আপনাদের। আমি অন্যায়কারীকে প্রশ্রয় দিইনি, দেবও না।
আজ বুধবার সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
শেখ হাসিনা বলেন, দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পুলিশের। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হলে এর দায়-দায়িত্বও পুলিশের ওপরই বর্তায়। আমরা সেভাবেই পুলিশকে গড়ে তুলছি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত রয়েছে আমাদের, এটি পৃথিবীর কোথাও নেই। সেটিকে আমাদের কাজে লাগাতে হবে। সেখানে যেন পর্যটকরা বিনা বাধায় ভয়-ডরহীনভাবে যেতে পারেন সেটা নিশ্চিত করার দায়িত্ব পুলিশের। সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আরও এগিয়ে যাবো। এজন্য পুলিশ বিভাগেরও কৃতিত্ব রয়েছে। আমরা আমাদের অর্থনীতিতে আরও গতি আনতে পারতাম। আগুন সন্ত্রাস না হলে আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৭ ভাগে উন্নীত হতে পারতো। ইনশাআল্লাহ আগামীতে আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৭ ভাগে গিয়ে ঠেকবে।
প্রধানমন্ত্রী জানান, কাজের সুবিধার্থে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়কে কয়েকটি ভাগে ভাগ করে দেয়া হবে। এ নিয়ে আমরা কাজ করছি। বিষয়টা আমাদের ওপর ছেড়ে দেন, আমি দেখছি।
পুলিশ যেন সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারে, সেজন্য তাদের সে ধরনের সুযোগ-সুবিধা থাকা দরকার, সরকার সেসব ব্যবস্থা করেছে। পুলিশ বাহিনীর কল্যাণে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোথায় কি করতে হবে, সেটা আমরা জানি। তাই সরকারের কাছে কোনো দাবি করতে হয় না। দাবি ওঠার আগেই তা পূরণ করি।
আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ছাড়াও বিএনপি-জামায়াত-শিবিরের হরতাল-অবরোধের নামে নৃশংসতা মোকাবেলা, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও চরমপন্থীদের দমনে পুলিশ বাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলাসহ গুরুত্বপূর্ণ বোমা হামলা মামলার তদন্তেও পেশাদারিত্ব ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করেছেন আপনারা। আপনাদের ভূমিকায় জুয়া-চোরাচালান, নারী ও শিশু চালান আমরা বন্ধ করতে পেরেছি। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেরেছি।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় আরও জোরদার করার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সমন্বয়ে কিছুটা গতি এসেছে, এটা নিয়ে কাজ হচ্ছে।