শনিবার ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে দিন দিন ডাকাতি বেড়ে চলছে

প্রকাশঃ ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইলের শাহবাজপুরে গনডাকাতি হয়েছে। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে তিতাস নদীর ব্রীজের দক্ষিণ পাশে যাত্রীবাহী পরিবহন ও পণ্যবাহী ট্রাকে দূর্ধর্ষ এ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতির কারনে মহাসড়কের ৬ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছিল। এ ঘটনায় তারিকুর রহমান নামের এক ভুক্তভোগী যাত্রী বাদী হয়ে সরাইল থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। গত ৭ দিনে সরাইলের সড়কে ও বাড়িতে ৪টি ডাকাতি হয়েছে। তাই জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে। পুলিশ, ডাকাতের কবলে পড়া চালক ও যাত্রীরা জানায়, মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে তিতাস নদীর ব্রীজের দক্ষিণ পাশে সড়ক সংলগ্ন ইটভাটার ইটা ও ব্লক ফেলে প্রথমে সড়কে বেরিকেড দেয় ৩০-৪০ জনের মুখোশধারী ডাকাত দল। পরে লোহার তৈরী ধারালো রড ফেলে কৌশলে চাকা ফুটো করে সিলেট থেকে ঢাকাগামী ট্রাক ও যাত্রীবাহী গাড়ির গতিরোধ করে। শাহবাজপুর পুলিশ ক্যাম্প থেকে মাত্র ৩০-৪০ গজ দূরে মহাসড়কে ডাকাতরা তখন বিভিন্ন অস্ত্র দেখিয়ে যাত্রী ও চালকদের জিম্মি করে ফেলে। পরে চালায় মারধর ও লুটপাটের তান্ডব। পাথর বোঝাই ৪-৫টি ট্রাকের চালক ও হেলপারকে মারধর করে নগদ টাকা মুঠোফোন সেট ছিনিয়ে নেয়। এ ছাড়া কয়েকটি মাইক্রো বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে লন্ডনের ভিসা লাগানো পাসপোর্টসহ সর্বস্ব নিয়ে নির্বিঘেœ চলে যায় ডাকাতদল। ডাকাতিকালে মহাসড়কের উভয়দিকে ৬ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে তীব্র যানজট লেগে যায়। সরাইল থানা ও হাইওয়ে পুলিশের হস্তক্ষেপে গতকাল সকাল ৮টার পর সড়ক যানজটমুক্ত হয়। ডাকাতির ঘটনায় গতকাল সকালে মাইক্রো বাসের যাত্রী মৌলভী বাজারের তারিকুর রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে সরাইল থানায় একটি ডাকাতি মামলা করেছেন। পুলিশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ওই চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টার কথা জানিয়েছে। ওদিকে ২ ফেব্রুয়ারী সকাল ৭টায় সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক মহাসড়কে বিশ্বরোড থেকে নাসিরনগরগামী যাত্রীবাহী ৩-৪টি সিএনজি অটোরিকশার গতিরোধ করে ১০-১২ জনের মুখোশধারী একদল ডাকাত। পরে ডাকাতরা যাত্রী ও চালকদের মারধর করে সর্বস্ব লুটে নেয়। গত ৩ ফ্রেব্রুয়ারী বুধবার দিবাগত গভীর রাতে কালিকচ্ছ ঘোষ পাড়ায় নকুল চন্দ্র ঘোষের (৫৮) বাড়িতে দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ২ বছর বয়সের কন্যা শিশু পল্লবী ও জনৈক গৃহবধুকে জিম্মি করে ডাকাতরা ৩-৪ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। ডাকাতির অন্তরালে নকুলের বাড়িতে অত্যন্ত স্পর্শকাতর ও লোমহর্ষক ঘটনা ঘটিয়েছে ডাকাতরা। এমন তথ্য দিয়েছেন নকুলের একাধিক প্রতিবেশী। গত ৬ ফেব্রুয়ারী শনিবার গভীর রাতে সরাইল-নাসিরনগর সড়কের জিল্লুকদার পাড়া ব্রীজ সংলগ্ন সড়কে মুখোশধারী একদল ডাকাত ইটা ও গাছের ডাল দিয়ে ৪-৫টি যাত্রীবাহী সিএনজি চালিত অটোরিকশা আটক করে। পরে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চালক ও যাত্রীদের জিম্মি করে মুঠোফোনসেট নগদ টাকাসহ সবকিছু লুটে নেয়। এক সময় টহল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলী আরশাদ মহাসড়কের শাহবাজপুরে পরিবহনে ডাকাতি ও মামলার কথা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই গ্রেপ্তার করা হবে।