বৃহস্পতিবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৪শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

মনোনয়নপত্র ছাপা শুরু, তফসিলের পর ব্যালট পেপার

প্রকাশঃ ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬

নিজস্বপ্রতিবেদকঃ অবশেষে সারাদেশের নির্বাচন উপযোগী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি আরও একধাপ সম্পন্ন করলো নির্বাচন কমিশন (ইসি)। চেয়ারম্যান, সাধারণ ও মহিলা সদস্য পদের মনোনয়নপত্র ছাপানো শুরু করেছে কমিশন। এছাড়া তফসিল ঘোষণার পরপরই ছাপানো শুরু হবে ব্যালট পেপার।
ইসি’র নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সোনারবাংলা৭১.কমকে বলেন, ইতোমধ্যে মনোনয়নপত্র ও প্রতীকের নমুনা পোস্টার ছাপানোর জন্য বিজি প্রেসকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) জাবেদ আলী সোনারবাংলা৭১.কমকে বলেন, তফসিল ঘোষণার আগে মনোনয়নপত্র ছাপাতেই হয়। কেননা, তফসিল ঘোষণার পরপরই প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র কিনতে আসেন।

এছাড়া ব্যালট পেপার ছাপানো হবে তফসিল ঘোষণার পরপরই। এক্ষেত্রে সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্যপদের ব্যালট পেপার আগেভাগে ছাপানো হবে। কেননা, এ দু’টি পদের প্রতীকগুলো সংরক্ষণ করাই রয়েছে। তাই প্রতীক বরাদ্দ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না।

চেয়ারম্যান পদে দলীয়ভাবে ভোটগ্রহণ হবে তাই ব্যালট পেপারে দলীয় প্রতীক ও প্রার্থীর নাম থাকবে। কিন্তু প্রতীক জানা থাকলেও প্রার্থীর নাম জানা নেই, এজন্য চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপার ছাপানো হবে প্রতীক বরাদ্দের পর।

ইসি’র নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সচিব মো. সামসুল আলম বলেন, নির্বাচন পরিচালনা বিধিমালা ও আচরণ বিধিমালা ইতোমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে। তাই মনোনয়নপত্রসহ আনুষাঙ্গিক ফরম ছাপানোর প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়া শিগগিরই নির্বাচনের তফসিল দেবে কমিশন। তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই যেনো প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র কিনতে পারেন, সে ব্যবস্থাই আমরা করছি। এছাড়া নির্দলীয়ভাবে যেসব পদে ভোট হবে, সেগুলোর ব্যালট পেপার আগে ছাপানোর কাজও চলছে।

ইসি’র মুদ্রণ শাখা থেকে জানা গেছে, মনোনয়নপত্র ও প্রার্থীদের নমুনা পোস্টার ছাপানোর জন্য এক সহকারী সচিবকে বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতেই বিজি প্রেসে পাঠানো হয়েছে। তবে ওই কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

আরও জানা গেছে, মেয়াদোত্তীর্ণ চার হাজার ২শ ৭৯টি ইউপিতে ভোটগ্রহণ করবে ইসি। এতে সদস্য পদ রয়েছে প্রায় ৪৬ হাজার আর চেয়ারম্যান পদ রয়েছে চার হাজার ২শ ৭৯টি। সবমিলিয়ে ৫০ হাজারের বেশি পদের বিপরীতে অন্তত লাখ লাখ মনোনয়পত্র ছাপাতে হবে। এছাড়া তিনটি পদের জন্য নমুনা পোস্টার ছাপাতে হবে ৫০ হাজার ১০৫টি।

এদিকে, চার হাজার ২শ ৭৯টি ইউপিতে ভোটার রয়েছে সাত কোটি ৭০ লাখের মতো। তিনটি পদের ক্ষেত্রে এসব ভোটারের জন্য মোট ২৩ কোটি ১০ লাখ ৬৬ হাজার ব্যালট পেপার ছাপাতে হবে। এর মধ্যে চেয়ারম্যানের পদের সাত কোটি ৭০ লাখ ব্যালট পেপার প্রতীক বরাদ্দের পর ছাপাতে হবে।

নির্বাচন কমিশন রাষ্ট্রায়াত্ত তিনটি প্রেস থেকেই এসব মুদ্রণ সামগ্রী ছাপানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে সময়ের সংকুলান না হলে বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে বেসরকারি প্রেস থেকেও ব্যালট ছাপাতে পারে। এর আগে, তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সময় বেসরকারি প্রেস থেকেও ব্যালট পেপার মুদ্রণ করেছিলো ইসি।

ইসি সচিব সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, আগামী রোববারের মধ্যেই ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। এক্ষেত্রে ছয় থেকে সাত দফায় নির্বাচন উপযোগী ইউপিগুলোতে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করবে ইসি। প্রথম দফায় পাঁচ শতাধিক ইউপিতে ভোট হবে। এগুলোর মুদ্রণসামগ্রী আগে ছাপানো হচ্ছে।