সোমবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

দেবিদ্বারে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশঃ ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬

নিজস্বপ্রতিবেদকঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় তাসলিমা বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।
শশুরবাড়ির লোকজন আত্মহত্যার কথা বলে প্রচারণা চালালেও নিহতের বাবার বাড়ির লোকজন বলছে, তাকে হত্যা করে ফাসিঁতে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।
শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ভোরে কোনো এক সময় উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের দেহেরমণ্ডল গ্রামে শশুরবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত তাসলিমা বেগম কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার আসাদনগর গ্রামের চান মিয়ার মেয়ে। তিনি তিন সন্তানের জননী ছিলেন।
নিহতের বোনের ছেলে মোজাম্মেল হক সোনারবাংলা৭১.কমকে বলেন, পাঁচদিন আগে খালার দেবর তাজুল ইসলাম খালাকে বেদম মারধর করেন। ওই সময় খালা চোখে, বুকে ও হাতে গুরুতর আঘাত পান।
খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়ে খালাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করি। এ ঘটনায় আমরা মামলা করার প্রস্তুতি নিলে খালার শশুরবাড়ির এলাকার সমাজের মাতব্বররা সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেন। তখন আর মামলা করিনি। বৃহস্পতিবার রাতে খালার শাশুড়ি জোবেদা বেগম, ননদ শিউলি ও জা মিলে ফের খালাকে মারধর করেন। পরে রাতে খালার স্বামী নজরুল ইসলামও খালাকে মারধর করেন। এরপর তিনি মারা গেলে শুক্রবার সকালে আমাদের খবর দেওয়া হয় যে, খালা ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন।
এ বিষয়ে দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান সোনারবাংলা৭১.কমকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য বের হয়ে আস