রবিবার ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

কারিগরির ১১৫০ জন শিক্ষক-কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দেবে সিঙ্গাপুর

প্রকাশঃ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬

বাংলাদেশের ১ হাজার ১৫০ জন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শিক্ষক ও কারিগরি শিক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে প্রশিক্ষণ দেবে সিঙ্গাপুর। এ লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার একটি অংশীদারিত্ব চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের উপস্থিতিতে নানিয়ান পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে এতে স্বাক্ষর করেন অতিরিক্ত সচিব ও কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস এবং সিঙ্গাপুর সরকারের পক্ষে নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফুং তেজ ফুন চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি অনুযায়ী, আগামী তিন বছরে ১ থেকে ৬ সপ্তাহ মেয়াদী মোট ৬০টি প্রশিক্ষণ কোর্সে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটগুলোর বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক এবং কারিগরি শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি মোট ১ হাজার ১৫০ জন কর্মকর্তা সিঙ্গাপুরের নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনালে প্রশিক্ষণ নেবেন।

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের স্কিলস অ্যান্ড ট্রেনিং এনহেন্সমেন্ট প্রজেক্টের (স্টেপ) মাধ্যমে এ সহযোগিতার আওতায় নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশে ১০টি পলিটেকনিট ইনস্টিটিউটে ১০টি অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি স্থাপন করবে বলেও চুক্তিতে উল্লেখ করা হয়।

চুক্তির আওতায় প্রশিক্ষণ ও ল্যাব স্থাপনে ৫৬ কোটি টাকা ব্যয় হবে; যার ৩১.১৫% নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল এবং ৬৮.৮৫% বাংলাদেশ সরকার, বিশ্ব ব্যাংক ও কানাডার অর্থায়নে পরিচালিত স্টেপ বহন করবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে স্টেপ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. ইমরান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ.এস. মাহমুদ, ন্যাশনাল স্কিলস ডেভলপমেন্ট কাউন্সিল সেক্রেটারিয়েটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খোরশেদ আলম, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মাহবুব উজ জামান এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার চ্যান হেং উইং উপস্থিত ছিলেন।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষায় সহায়তা প্রদান করায় সিঙ্গাপুর সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সরকারের দৃঢ় অঙ্গীকার ও সর্বাত্মক পদক্ষেপ গ্রহণ এবং উন্নয়ন অংশীদারদের সহযোগিতায় বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষায় যুগান্তকারী অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে। ২০১৪ সালে অনুরূপ এক চুক্তির আওতায় নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের ৪২০ জন শিক্ষক-কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করে, যার ইতিবাচক প্রভাব বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষাঙ্গনে ইতোমধ্যে পরিলক্ষিত হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দায়িত্ব গ্রহণের সময় মোট শিক্ষার্থীর ১ শতাংশের কম কারিগরি শিক্ষায় লেখাপড়া করতো। বর্তমানে এ হার ১২ শতাংশের বেশি। ২০২০ সালের মধ্যে এ হার ২০ শতাংশে উন্নীত করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।