মঙ্গলবার ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

টাঙ্গাইল ভাইয়ের হাতে ভাই খুন॥ আটক ৩

প্রকাশঃ ০৫ মার্চ, ২০১৬

জেলাপ্রতিনিধি: 22-31টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার ধলাপাড়া খালপাড়ে শুক্রবার (৪ মার্চ) বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই আনিস মিয়া (৫০) খুন হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত ৩ জনকে আটক করেছে। মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলার উত্তর ধলাপাড়া গ্রামের মো. আনিছুর রহমানের সাথে তার ছোট ভাই মো. গণিজ মিয়ার দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল শুক্রবার সকালে বাড়ির বিরোধীয় সীমানার পরিমাপের কাজ চলাকালীন দুই ভাইয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। সন্ধ্যায় বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে গণিজ মিয়া তার স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে বড় ভাই আনিছুর রহমানের উপর চড়াও হয়। তারা আনিছুরকে লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করে এবং গলাচেপে ধরে। ঘটনাস্থলেই আনিস মিয়া মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আনিছুরের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। রাতে নিহত আনিছুরের স্ত্রী হাজেরা বেগম বাদী হয়ে সাত জনকে আসামী করে ঘাটাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গ্রেপ্তারকৃতরা ছাড়া মামলার অন্য আসামীরা হল, আনিছুরের দুই ভাই গনিজ মিয়া, লাবলু মিয়া ও তার স্ত্রী হামিদা বেগম এবং গনিজ মিয়ার মেয়ে শাহিদা আক্তার।ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামাল হোসেন জানান, শুক্রবার (৪ মার্চ) বিকালে আফাজ মিয়ার ছেলে আনিস মিয়া, গনিজ মিয়া ও তাদের ভাতিজা সাইফুল এবং শহিদুলের সঙ্গে জমি নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে গনিজ ও তার ভাতিজারা মিলে আনিসের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে আনিস মিয়া মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরবর্তীতে গনিজ মিয়া তার বড় ভাই আনিস মিয়াকে গলাটিপে হত্যা করে। এ নিহতের ঘটনায় গণিজ মিয়ার ছেলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্র মো. শহিদুল ইসলাম (২৮) ও তার ভাই মো. সাইফুল ইসলামকে (২৬) এবং তার স্ত্রী হেনা বেগম (৪৬) কে আটক করে টাঙ্গাইল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।