বৃহস্পতিবার ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৪শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

এবার শ্বাশুড়ির হাতে পুত্রবধূ খুন

প্রকাশঃ ১২ মার্চ, ২০১৬

নিজস্ক প্রতিবেদক- রংপুর বদরগঞ্জে পুত্রবধূর ঘুষিতে শ্বশুড়ের মৃত্যুর রেশ না কাটতেই এবার যৌতুকের জন্য শ্বাশুড়ির হাতে খুন হয়েছেন লাকি বানু (২৩) নামে এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শ্বাশুড়ি শায়রা বেগম ও নানী শ্বাশুড়ি ফজিলা বেওয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুরে রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের সরদারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, আড়াই বছর আগে কুতুবপুর ইউনিয়নের সরদারপাড়া এলাকার তহসিন মিয়ার ছেলে ট্রলি চালক সাজেদুল হকের সঙ্গে রংপুর মহানগরীর মডার্ন মোড় এলাকার আনিছার রহমানের মেয়ে লাকি বানুর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য লাকির সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদে জড়িয়ে পড়তেন শ্বাশুড়ি শায়রা বেগম। মাঝে মধ্যে তাকে শারীরিক নির্যাতনও করা হতো।

নিহতের বোনের মেয়ের রোকসানা খাতুন:সোনারবাংলা৭১.কমকে জানান, সাজেদুলের সঙ্গে লাকি বানু বিয়ের সময় দেড় লাখ টাকা যৌতুক দাবি করা হয়েছিল। তার মধ্যে বিয়ের আসরেই এক লাখ ৪০ হাজার টাকা শ্বাশুড়ি শায়রার হাতে দেয়া হয়। কিন্তু সাংসারিক অভাবের কারণে বাকী ১০ হাজার টাকা দিতে দেরি হওয়ায় লাকি বানুকে প্রায়ই নির্যাতন করা হতো। কিছুদিন আগেও তাকে নির্যাতন করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। পরে অনেক কষ্টে পাঁচ হাজার টাকা জোগাড় করে তাকে পুনরায় স্বামীর বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। বাকী পাঁচ হাজার টাকার জন্যই তার খালামনিকে জীবন দিতে হলো।

লাকির মামা সাদেকুল ইসলাম জানান, তাকে এভাবে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হবে সেটা তারা কখনও ভাবতে পারেননি। আগে বুঝলে লাকিকে তার স্বামীর ঘরে পাঠানো হতো না।

প্রতিবেশীরা জানান, শনিবার সকাল ৯টার দিকে তারা লাকি বানুকে কাজ করতে দেখেছেন। কিন্তু বেলা ১১টার পর তার শ্বাশুড়ি শায়রা বেগম সবার কাছে বলে বেড়াতে শুরু করেন, লাকি আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে শয়নকক্ষ থেকে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় লাকির মরদেহ উদ্ধার করে। এ সময় নিহতের স্বামী সাজেদুল হক বাড়িতে ছিলেন না। তিনি ভোরে ট্রলি নিয়ে বাইরে চলে যান। তাদের ছয় মাস বয়সী রিয়াজ হাসান শক্তি নামে একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

ঘটনাস্থলে পরিদর্শন শেষে বদরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তৈয়ব আলী সরকার সাংবাদিকদের জানান, গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার মতো কোনো আলামত লাকি বানুর শরীরে নেই। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছেন তারা।

এ ব্যপারে বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজার রহমান :সোনারবাংলা৭১.কমকে জানান, এ ঘটনায় মামলা করা হবে। নিহতের শাশুড়ি ও নানী শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বলা যাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে, নাকি আত্মহত্যা করেছেন।

আর আগে, গত বুধবার রাতে বদরগঞ্জের দামোদরপুর ইউনিয়নের শেখেরহাট এলাকার মাটিয়াল পাড়ায় পুত্রবধূর ঘুষিতে জয়নাল আবেদীন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ শ্বশুড়ের মৃত্যু হয়। ঘটনার পর থেকেই স্বামী লোকমানসহ ঘাতক পুত্রবধূ মকসু বেগম পলাতক রয়েছেন।