শুক্রবার ২৮শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

প্রকাশঃ ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১

আদালত প্রতিবেদক:কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় গর্ভবতী স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামী শাহিনুল ইসলাম (৩৫) কে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর)কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি শাহিনুল ইসলাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। কুষ্টিয়া জজ কোর্টের সরকারি কৌশুলী অনুপ কুমার নন্দী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

শাহিনুল মিরপুর উপজেলার নওদা খাড়ারা গ্রামের শাজাহান মালিথার ছেলে। হত্যাকাণ্ডের সাত বছর আগে নিহত চম্পা খাতুনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকা অবস্থায় আসামি তার নিজ বসতবাড়ির শোয়ার ঘরে স্ত্রীর গায়ে আগুন দিয়ে হত্যা করে।

আদালত সূত্রে জানায়, পারিবারিক বিরোধের জেরে ২০১৪ সালের ৯ অক্টোবর রাত ৩টার দিকে শাহিনুল ইসলাম তার স্ত্রী চম্পার শাড়ি ও ঘরের বেড়ায় কেরোসিন ছিটিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে চম্পার শরীরের অধিকাংশ স্থান আগুনে ঝলসে যায়। পরে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পরবর্তীতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চম্পার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহত চম্পা খাতুনের চাচা শাহাদাত আলী বাদী হয়ে ঘাতক স্বামী শাহিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে আদালত এ মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ১৩ ডিসেম্বর রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন। ধার্য তারিখে আদালতের বিচারক আসামি শাহিনুলকে ফাঁসির আদেশ দেন। আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করা হয়। রায় ঘোষণার পরপরই দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে পুলিশ পাহারায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।