শুক্রবার ২৮শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

বগুড়ায় ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে হামলা, গুলিতে নিহত ৪

প্রকাশঃ ০৬ জানুয়ারি, ২০২২

জেলা প্রতিনিধি:বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ডের কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেট-বিজিবির ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে নৌকার প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে। নৌকার সমর্থকরা এ সময় পুলিশ, বিজিবি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার চারটি গাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করেছেন।

হামলায় উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা, পুলিশ ও বিজিবির সদস্যসহ চারজন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা কয়েক দফা গুলিবর্ষণ করেছে।

নিবাচনী সহিংসতায় বিজিবির গুলিতে নিহতদের সংখ্যা রাত ৯টা পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। তবে স্থানীয় সূত্র জানা যায়, গুলিতে ৪ জন নিহত হয়েছেন।এ সময় অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতদের বগুড়া শজিমেকসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- গাবতলী উপজেলার বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের কালাইহাটা ইউনিয়নের মধ্যপাড়ার বাসিন্দা খোকন মন্ডলের স্ত্রী কুলসুম (৪০)। তিনি ওই ওয়ার্ডের সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ছোবেদার নির্বাচনী এজেন্ট ছিলেন। মধ্যপাড়ার মৃত মবদুলের ছেলে আলগীর (৩৫), পশ্চিমপাড়ার মৃত ইফাতুল্লা প্রামানিকের ছেলে আব্দুল রশীদ (৪৮), উত্তরপাড়ার মৃত ছহির উদ্দিন আকন্দর ছেলে খোরশেদ আকন্দ (৬৫)।

বুধবার (০৫জানুয়ারি)সন্ধ্যা ৬টার দিকে গাবতলী উপজেলার বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের কালাই হাটা উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার দিনভর ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যায় গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালিয়াহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গণনা চলছিল। ওই কেন্দ্র আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইউনুস আলী ফকিরের বাড়ির কাছে। ভোট গণনা হলেও প্রশাসনের কর্তারা সেখানে ফলাফল ঘোষণা দিতে অসম্মতি জানান। তারা ব্যালট বগুড়া সদরে আনার প্রস্তুতি নেন।

অভিযোগ উঠে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা তার আত্মীয় বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা মার্কার সাকিউল ইসলাম তিতু বা ঘোড়া মার্কার মাহবুবুর রহমানের পক্ষ নিচ্ছেন। এ সময় নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। তারা ফলাফল ঘোষণার দাবিতে সড়কে কাঠের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন। শত শত নারী পুরুষ লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান নেন এবং মারমুখী হয়ে উঠেন।

গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানিয়েছেন, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন। তবে কেউ নিহত হয়েছেন কি না তা নিশ্চিত হতে পারেননি। রাতে এ খবর পাঠানোর সময় এলাকার পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।